Breaking News
Home / শিক্ষা / মাত্র পাওয়াঃ অ্যাসাইনমেন্ট নিজে না করে কপি করলেই তা বাতিল হবে!
মাত্র পাওয়াঃ অ্যাসাইনমেন্ট নিজে না করে কপি করলেই তা বাতিল হবে!
মাত্র পাওয়াঃ অ্যাসাইনমেন্ট নিজে না করে কপি করলেই তা বাতিল হবে!

মাত্র পাওয়াঃ অ্যাসাইনমেন্ট নিজে না করে কপি করলেই তা বাতিল হবে!

প্রিয় এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা, শুভেচ্ছা নিও। আশা করি সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমতে সবাই সুস্থ আছ। তোমরা এখন সবাই যার যার নির্ধারিত অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে ব্যস্ত রয়েছ। অ্যাসাইনমেন্ট তৈরি ও জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে তোমাদের কিছু নিয়ম অবশ্যই পালন করতে হবে, সেগুলো আমি তোমাদেরকে এক এক করে স্মরণ করিয়ে দিচ্ছি।

১. অ্যাসাইনমেন্টের কভার পেইজ পূরণের সময় অবশ্যই যথাযথ নিয়ম পালন করবে। কারণ, নিয়মের ব্যত্যয় ঘটলে তোমার পুরো কষ্টই বৃথা হয়ে যাবে। মনে রাখবে, তোমার পরীক্ষায় পাশের ক্ষেত্রে এ অ্যাসাইনমেন্ট অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। পুরো কাজটাই তোমাকে নিজের হাতে করতে হবে। অন্য কাউকে দিয়ে লেখানো যাবে না।

২. অ্যাসাইনমেন্ট নিজে না করে অন্য কোনো উৎস থেকে হুবহু কপি করলে তা বাতিল হবে।

৩. অ্যাসাইনমেন্ট লেখার সময় শিটগুলোতে পরীক্ষার নিয়মানুযায়ী মার্জিন ঠিক রাখবে। এতে শিটগুলো পরিচ্ছন্ন থাকবে। ভালো নম্বর পাওয়ার ক্ষেত্রে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। অ্যাসাইনমেন্ট এক ধরনের পরীক্ষাই বলতে পার।

৪. অ্যাসাইনমেন্টে হাতের লেখা স্পষ্টাক্ষরে এবং সুন্দর করে লিখবে। কালো বলপয়েন্ট ছাড়া অন্য কোনো কালি ব্যবহার থেকে বিরত থাকবে। খেয়াল রাখবে জমা দেওয়ার আগে পর্যন্ত যেন তোমার লেখা কলমের কালি দিয়ে লেপ্টে না যায়।

৫. বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে চিত্র নিখুঁত রাখবে। যেহেতু ঘরে বসে চিত্র অংকন করবে, সেহেতু কোনোরকম দায়সারা গোছের চিত্র দিলে নম্বর পাবে না। পেন্সিলে আঁকা চিত্রের পরিচয় ও যাবতীয় নির্দেশনা নিশ্চিত করবে।

৬. গাণিতিক অংশের ক্ষেত্রে নির্ভুলভাবে সমাধান করতে হবে। কাটাছেঁড়া ঘষামাজা এড়িয়ে চলবে। প্রয়োজনে নতুন করে আবার লিখবে।

৭. হিসাববিজ্ঞানের শিক্ষার্থীরা হিসাবের ছক পেন্সিল দিয়ে যথানিয়মে আঁকবে। সমাধান নিশ্চিত করে তবে তা জমাদানের জন্য প্রস্তুত করবে।

৮. নির্ধারিত অ্যাসাইনমেন্টের বাইরে অন্য আবশ্যিক বিষয়গুলোর চর্চা অব্যাহত রাখবে। কারণ, পড়াশোনা তো শুধু পরীক্ষা দিয়ে পাশের জন্যই নয়, জীবন পরিচালনার ক্ষেত্র তৈরিতে এমনকি ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার গঠনে প্রতিটি বিষয়েরই গুরুত্ব রয়েছে।

৯. অ্যাসাইনমেন্ট সশরীরে জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে যথানিয়মে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘর থেকে বের হবে। কারণ, কোভিড থেকে বাঁচার প্রথম উপায়ই হচ্ছে নিজে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা।

পরিশেষে, তোমাদের সবার অ্যাসাইনমেন্ট সুন্দরভাবে সম্পন্ন হোক, এই দোয়া করছি। মহান স্রষ্টা তোমাদের সবাইকে সুস্থ রাখুন। আমিন।

About Daily Roxi

Check Also

২২ দফায় বেড়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি, বন্ধ থাকবে টানা ৫৩৩ দিন!

২২ দফায় বেড়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি, বন্ধ থাকবে টানা ৫৩৩ দিন!

দেশের স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও মাদ্রাসার সাধারণ ছুটি আরও এক দফায় বেড়েছে। গত বৃহস্পতিবার (২৯ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *